0
দেশী কলা

বর্তমান বিশ্বে বহুল জনপ্রিয়, পুষ্টিকর ও সুস্বাদু একটি ফলের নাম কলা। কলাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, বি, সি, শর্করা ও ক্যালসিয়াম। তবে এত পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ফল হওয়া সত্ত্বেও আমরা সেই পুষ্টিগুলো সঠিকভাবে গ্রহণ করতে পারছি না। কারণ বর্তমানে ঘরের বাইরে কিংবা বাজারে যেখান থেকেই কলা কিনতে যান না কেন, ফরমালিনযুক্ত কলা ব্যতীত পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ কলা কোথাও পাবেন না।

মূলত ফল ব্যবসায়ীগণ অনেক দিন পর্যন্ত ফলগুলোকে ভালো রাখার জন্যই ফরমালিন ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু এই ফরমালিন শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর। এই সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য ফলবাজার নিয়ে এল সম্পূর্ণ অর্গানিক উপায়ে প্রস্তুতকৃত পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ফল। সারা বাংলাদেশের যেকোন অঞ্চলে সম্পূর্ণ ১০০% পিওর এবং ফরমালিন মুক্ত কলা আমরা সরবরাহ করে থাকি। আপনাদের আস্থা অর্জনের লক্ষে কলা ছাড়াও আরো অনেক ধরনের ফরমালিন মুক্ত ফল আমরা প্রতিনিয়ত সরবরাহ করে চলছি।

প্রতি ১০০ গ্রাম পাকা কলাতে রয়েছে-

  • ২৫ গ্রাম শর্করা
  • ৭ গ্রাম প্রোটিন
  • ০.৮ গ্রাম চর্বি
  • ০.১০ মিলিগ্রাম ভিটামিন বি-১ (থায়ামিন)
  • ০.০৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন বি-২ (রাইবোফ্লেভিন)
  • ২৪ মিলিগ্রাম ভিটামিন ‘সি’
  • ১৩ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম
  • ০.৯০ মিলিগ্রাম লৌহ
  • ৮০ মাইক্রোগ্রাম ক্যারোটিন (ভিটামিন ‘এ’) এবং
  • ১০৯ কিলোক্যালোরি খাদ্যশক্তি।

কেন ফলবাজারের কলা সেরা?

আপনারা জেনে অত্যন্ত খুশি হবেন যে বাংলাদেশের একমাত্র অনলাইনে অর্গানিক ফলের বাজার হলো ফলবাজার ডট কম। অন্যান্য অঞ্চলের মতো আমাদের এখানে কখনোই কোনো ফল চাষে কোনো প্রকার ক্যামিকেল ব্যবহার করা হয় না। যার কারণে ফলের সম্পূর্ণ পুষ্টিগুণ অক্ষুণ্ন থাকে। তাই ফলবাজার থেকে আপনি সংগ্রহ করতে পারেন সম্পূর্ণ ফ্রেশ ও উন্নতমানের কলা।

বেশিরভাগ ফল ব্যবসায়ীদেরই নিজস্ব কোনো ফল গাছ থাকে না। তারা অন্যান্য বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ফল আমদানি করে তারপর কাস্টমারদের কাছে তা বিক্রি করে। তবে আমরা সম্পূর্ণ নিজেদের বাগানে কলা চাষ করি। যার কারণে আপনি আমাদের উপর আস্থা রাখতে পারেন। আর এই সকল কারণেই ফলবাজারের কলা অন্যান্য যেকোন জায়গার কলা থেকে গুণগত মানের দিক থেকে অনেক উন্নত।

ডেলিভারি দিতে তো ২ থেকে ৩ দিন সময় লাগবে। তাহলে কিভাবে কলাগুলো ফ্রেশ অবস্থায় কাস্টমারদের নিকট পোঁছাবে?

আমরা দূর দূরান্তের কাস্টমারদের নিকট সম্পূর্ণ পাকা কলা সরবরাহ করব না। কারণ, তা করলে কলা চার থেকে পাঁচ দিন পর পচে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই আমরা তাদেরকে অর্ধ পাকা কলা সরবরাহ করব। যার ফলে সেগুলো কাস্টমারদের নিকট পোঁছাতে পোঁছাতে সম্পূর্ণ ভাবে পরিপক্ব ও খাওয়ার উপযোগী হয়ে উঠবে।

কলার উপকারিতা

কলা অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর একটি ফল। অত্যন্ত পরিশ্রমী ব্যক্তিরা প্রচুর পরিমাণে কলা খেয়ে থাকে। কেননা কলা খেলে ক্লান্তি দূর হয়। তাছাড়া, খেলার মাঠে বিরতির সময় লক্ষ্য করলে দেখবেন যে খেলোয়াড়েরা প্রায় সময়ই কলা খেয়ে থাকে। কেননা তারা অনেক সময় ধরে খেলার কারণে শারীরিক দূর্বলতা ও ক্লান্তি অনুভব করে। আর এই দূর্বলতা ও ক্লান্তি নিবারণের জন্যই তারা কলা খেয়ে থাকে। এতে করে পুনরায় তাদের শক্তি ফিরে আসে।

পরিমাণ মতো কলা খেলে হৃদপিণ্ড ভালো থাকে

গর্ভাবস্থাতে শরীরের ব্লাড প্রেশার উঠা নামা করতে পারে। কলাতে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম রয়েছে। অপরদিকে সোডিয়ামের পরিমাণ অনেক কম। যার ফলে ব্লাড প্রেশার নিয়ণত্রণে ওষুধের বিকল্প হিসেবে আপনি নির্ভয়ে কলা খেতে পারেন।এছাড়াও শরীরের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঠিক রাখতে কলা বেশ উপকারী ভূমিকা পালন করে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

0

TOP

X